স্বেচ্ছাসেবা বা ইন্টার্নীর সুযোগ
সামছউদ্দীন-নাহার তার কর্মকাণ্ডের বিভিন্ন অংশে স্বেচ্ছাসেবা বা ইন্টার্নীর সুযোগ দিচ্ছে।
সময়: ৩ সপ্তাহ থেকে ৬ মাস
সুযোগ-সুবিধা: রান্নার সুবিধাসহ ফ্রি আবাসন ব্যাবস্থা
যোগাযোগ করুন:
চীফ ফ্যাসিলিটেটর/সমন্বয়ক
সামছউদ্দীন-নাহার ট্রাস্ট
বৈটপুর (চিতলী), বাগেরহাট
মোবাইল:01920732512 ইমেইল:skumer_420@yahoo.com

সামছউদ্দীন-নাহার ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত স্বাস্থ্য ও শিক্ষা কেন্দ্রে দুইটি প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, একটি কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও একটি প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম রয়েছে। বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল বাগেরহাটে ও রাজশাহীর চর অঞ্চলে এ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। মূল কার্যক্রম বাগেরহাট জেলার বেমর্তা ইউনিয়নে পরিচালিত হচ্ছে যা পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ সুন্দরবন থেকেও খুব দূরে নয়। এখানে একদিকে যেমন অফুরান প্রাকৃতিক ঐশ্বর্য্য রয়েছে, তেমনি অন্যদিকে ছড়িয়ে আছে পীর খানজাহানের ইতিহাস সমৃদ্ধ ঐতিহাসিক স্মৃতিকণাসমূহ। গ্রামীণ জীবনের সাথে রয়েছে দেশের অন্যতম রপ্তানী পণ্য চিংড়ী চাষের অঞ্চল। সামছউদ্দীন-নাহার ট্রাস্টের উদ্ভাবনী প্রকল্পে হাতে কলমে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এখান থেকে অভিজ্ঞতা অর্জন করে বাস্তব জীবনে সফলতা অর্জন করতে সহায়ক হবে।

কার্যক্রমের যে সকল অংশে কাজ (স্বচ্ছাসেবা/ইন্টার্নীশীপ) করার সুযোগ রয়েছে – (১) ইংরেজি ও গণিতে শিক্ষকতা, (২) ইংরেজি ও গণিত ক্লাবে প্রশিক্ষণ করান, (৩) কথার লড়াই (সৃজনশীল লেখা, বিতর্ক, বক্তৃতা, গান, নাচ), কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান। এবং (৪)দরিদ্র ও সুবিধা-বঞ্চিত গ্রামের জনগণকে বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্য সেবা প্রদান।

আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

.


© সুব্রত কুমার মুখার্জী, সামছউদ্দীন-নাহার ট্রাস্ট।